গউসুল আজম কতজন????

Standard

পৃথিবীতে গউসুল আজম কতজন?
এই প্রশ্নের জবাব দিয়েছেন- জগত বিখ্যাত হানাফী মাযহাবের মোহাদ্দেস মোল্লা আলী ক্বারী(রহঃ)।তিনি ১০১৪ হিজরীতে ইনতিকাল করেন।তিনি মক্কী। তাঁর কথা দলীল হিসেবে গণ্য।

তিনি তাঁর গ্রন্থ “নুজহাতুল খাতিরিল ফাতির ফি তারজিমাতে সাইয়েদীস শরীফ আবদুল কাদের(রাঃ)” উল্লেখ আছেঃ
“শীর্ষস্থানীয় উলামা ও মাশায়েখগণের মাধ্যমে আমি(মোল্লা আলী ক্বারী) নিশ্চিতভাবে অবগত হয়েছি যে, সাইয়েদুনা ইমাম হাসান মোজতবা রাদ্বিয়াল্লাহু আনহু উম্মতের মধ্যে ফেতনা ফ্যাসাদের আশংকায় যখন খেলাফত ত্যাগ করলেন,(৬মাসেন মাথায়) এর বিনিময়ে আল্লাহ তায়ালা তাঁর নিজের মধ্যে এবং তাঁর পবিত্র  বংশধরগণের মধ্যে গউসুল আজম এর মর্তবা নির্ধারিত করে দিলেন।ফলে প্রথম কুতুবে আকবর(গউসুল আজম) হলেন স্বয়ং ইমাম হাসান(রাঃ)।আর মধ্যখানে হলেন কেবলমাত্র- হুজুর সাইয়েদুনা সাইয়েদ শেখ আবদুল কাদের জিলানী এবং শেষ জমানায় হবেন হযরত ইমাম মাহদী রাদ্বিয়াল্লাহু আনহু আজমাঈন”
বিঃদ্রঃ হযরত ইমাম হাসান( রাঃ) এর মুল পরিচয় হচ্ছে- সাহাবী, বেহেশতের যুবকদের সর্দার ওপাক পান্জাতনের অন্যতম সদস্য।সাহাবীদের মর্তবা গউসুল আজমেরও উর্দ্ধে
তাই গউসুল আজমের মর্তবা বা মর্যাদা প্রাপ্ত হওয়া সত্তেও তিনি সাহাবী এবং রসুলে পাতের নাতী হিসেবে সমাধিক পরিচিত। যেমনঃ প্রত্যেক নবী অলী।অর্থাৎ- নবুয়তের মধ্যে বেলায়তও সংযুক্ত।কিন্তু তাঁরা পরিচিতি লাভ করেছেন নবী হিসেবে। তদ্রুপ ইমাম হাসান রাঃ এর মধ্যে গউসিয়তের উজমার সিফাত বিদ্যমান থাকা সত্তেও সাহাবী হিসিবে তিনি পরিচিত।
আরবী স্ক্যান সিটঃ

image

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s